দৈনিক ২৪ ঘন্টা, সপ্তাহে ৭ দিন সর্বশেষ সংবাদ নিয়ে

মাদারীপুর ২৪ ডটকম

Ruposhi Online
মূলপৃষ্ঠা » ক্যাটাগরিভিত্তিক সংগ্রহশালা » মুক্তিযুদ্ধ (Page 2)

ডিসেম্বর, ১৯৭১ সাল। খাকি পোশাকে দুইশ মুক্তিযোদ্ধা কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ করেছে। কুচকাওয়াজে দুইশজন যোগ দিলেও সারা মহকুমার মুক্তিফৌজের সংখ্যা ছিল ছয়শ। এরাই মাদারীপুর মুক্ত করেছেন। কুচকাওয়াজের সময় সাংবাদিকরা বসে চা খাচ্ছিলেন। এমন সময় বছর দশেকের একটি ছেলে স্টেনগান হাতে নিয়ে এগিয়ে এলো। বলল, আমার নাম মহম্মদ ইমরান। আমি পাঙ্গাসিয়া স্কুলের ক্লাস ফোরের ছাত্র। পাকিস্তানীরা যখন আসে […]

বিস্তারিত …

প্রতি বছরের মত এবারও যথাযোগ্য মর্যাদায় মাদারীপুর মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে। আজ সকাল ৮টায় ‘নতুন শহর কলেজগেট’ এলাকায় অবস্থিত ১০ ডিসেম্বর মাদারীপুর মুক্ত দিবসের যুদ্ধে শহীদ কিশোর মুক্তিযোদ্ধা সরোয়ার হোসেন বাচ্চুর কবরস্থানে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। জেলা প্রশাসক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, খলিল বাহিনীর সহযোদ্ধারা এবং শহীদ বাচ্চু নামের প্রতিষ্ঠিত দু’টি প্রাথমিক ও উচ্চ বিদ্যালয়ের […]

বিস্তারিত …

আজ ৮ ডিসেম্বর মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলা মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে কালকিনি উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের আক্রমণে কালকিনি ত্যাগ করে পাক হানাদার বাহিনী। মুক্ত হয় কালকিনি উপজেলা। ১৯৭১ সালের এপ্রিল মাসের শেষের দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ভূরঘাটায় ক্যাম্প স্থাপন করে পাকবাহিনী। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভূরঘাটার পাশে একটি ব্রীজের কাছে মানুষ ধরে এনে ধারালো অস্ত্র […]

বিস্তারিত …

জহিরুল ইসলাম খান : ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে হওয়ায় ১৯৭১ সালের এপ্রিল মাসের শেষের দিকেই মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় পাক হানাদার বাহিনী আস্তানা গড়ে তোলে। তবে মুক্তিযোদ্ধারা পাক হানাদার বাহিনীর ক্যাম্প আক্রমণ শুরু করে আগস্ট মাসের প্রথম দিক থেকে। একাত্তরের এই দিনে মুক্তিযোদ্ধাদের হামলায় পর্যুদস্ত পাক হানদার বাহিনী মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলা থেকে পালিয়ে পাশের গোপালগঞ্জের মুকসদুপুরের ছাগলছিড়া […]

বিস্তারিত …

জহিরুল ইসলাম খান: মাদারীপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের স্থায়ী ক্যাম্প ছিল জেলা শহর থেকে প্রায় ১৪ কিলোমিটার দূরে সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নে। ১৯৭১ সালের ২৯ অক্টোবর, বাংলা ১৪ কার্তিক রাতে মুক্তিযোদ্ধারা ঘটকচর রাজাকার ক্যাম্প আক্রমণে যায়। এই সুযোগে ১৫ কার্তিক খুব ভোরেই পাক বাহিনী আক্রমণ চালায় হিন্দু ধর্মাবলম্বী অধ্যুষিত ৪টি গ্রামে। রাজাকারদের সহযোগিতায় প্রায় দুই শতাধিক ঘর-বাড়িতে লুটপাট […]

বিস্তারিত …

আগামীকাল মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহকর্মী সাবেক প্রাদেশিক পরিষদ, গণপরিষদ ও জাতীয় সংসদ সদস্য, মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মৌলভী আছমত আলী খান এর ২০ তম মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে  আগামী ২৭ অক্টোবর’১৩ বাদ আছর মাদারীপুরস্থ মরহুমের বাসভবন সংলগ্ন চাঁদমারী জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা […]

বিস্তারিত …

‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে শানিত করার জন্য জ্ঞান অর্জন করতে হবে। বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের এই ভ্রাম্যমান লাইব্রেরি জ্ঞান অর্জনের জন্য সহায়ক হবে।’-আজ বেলা ১১টায় মাদারীপুরে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের ভ্রাম্যমান লাইব্রেরীর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান এ কথা বলেন। পরে দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে নৌ-মন্ত্রী আরো বলেন, ‘সর্বশেষ তত্ত্ববধায়ক সরকারের যে চেহারা আমরা দেখেছি তাতে […]

বিস্তারিত …

১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে (বাংলা ৫ জ্যৈষ্ঠ) মাদারীপুর জেলা সদর থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে সদর উপজেলার মিঠাপুরে পাক হানাদার বাহিনী হত্যা, অগ্নিসংযোগ, লুটতরাজ ও নির্যাতন চালায়। হিন্দু অধ্যুষিত এই এলাকায় সেদিন মারা যায় প্রায় একশ’ মানুষ। মাদারীপুরে মুক্তিযুদ্ধের সময় যে কয়েকটি গণহত্যার ঘটনা ঘটেছে তার মধ্যে এই মিঠাপুরের গণহত্যা অন্যতম। এছাড়া এইদিন গণহত্যা চলে […]

বিস্তারিত …

প্রসঙ্গ কথা : মাদারীপুরে মুক্তিযুদ্ধের প্রসঙ্গ এলে যার নামটি অবশ্যই সামনে চলে আসে তিনি হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর হোসাইন। মুক্তিযুদ্ধের সময় মাদারীপুর এরিয়াকে ৩টি এরিয়া কমান্ডে ভাগ করা হয়েছিল। মাদারীপুর সদর, কালকিনি ও রাজৈর থানা নিয়ে গঠিত ১নং এরিয়া কমান্ডের দায়িত্বে ছিলেন আলমগীর হোসাইন। তৎকালীন পাকিস্তান বয়েজ এয়ার ফোর্স-এ যোগদান করেন এবং করাচীতে চাকুরীরত ছিলেন […]

বিস্তারিত …
Page 2 of 212