দৈনিক ২৪ ঘন্টা, সপ্তাহে ৭ দিন সর্বশেষ সংবাদ নিয়ে

মাদারীপুর ২৪ ডটকম

Ruposhi Online

শেষ পর্যন্ত সদর উপজেলা নির্বাচনে আনসার-ভিডিপি হিসেবে শিশু-কিশোররা

03 Child Ansar-VDP in Upazila Electionমাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাচনে ১১৪টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৯৭টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ। এমন অবস্থায় প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে যেসব আনসার-ভিডিপি সদস্য পাঠানো হয়েছে তাদের মধ্যে ২ শতাধিক সদস্যের বয়স ১২ থেকে ১৬ বছরের মধ্যে। নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণাসহ সংশ্লিস্ট সব কাজে শিশু-কিশোরদের ব্যবহার সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ থাকলেও প্রশাসন কর্তৃক এসব শিশুদের ভোটকেন্দ্রে আনসার-ভিডিপি সদস্য হিসেবে পাঠানো ঘটনায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
এদের অধিকাংশ স্কুল পড়ুয়া ছাত্র। এদের মধ্যে ৬ষ্ঠ শ্রেণী থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থী রয়েছে। আবার অনেকে লেখা পড়া করে না। অনেকের বাবা-মা জানেন না তাদের ছেলে-মেয়ে ভোটকেন্দ্রে আনসার-ভিডিপি দায়িত্ব নিয়েছেন। বুধবার সকালে থেকেই মাদারীপুর পুলিশ লাইনে জড়ো হওয়া এমন দুই শতাধিক শিশু-কিশোরকে আনসার-ভিডিপি সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাচনের বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে।
নির্বাচনের দিন এসব শিশুদেরই সব কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে। শুধুমাত্র মাদারীপুর শহরের আলহাজ্ব আমিনউদ্দিন হাইস্কুল কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করেছে নৈয়ারবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী তামান্না আক্তার, এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া ১৬ বছর বয়সী সীমা ও ঘটকচর হাইস্কুলের নবম শ্রেণীর নাহিদ। পাবলিক ইনস্টিটিউশনে দায়িত্ব পালন করেছেন নাজিমউদ্দিন কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র ১৭ বছর বয়সী সাইদুর রহমান, শামসুন্নাহার ভূইয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মস্তফাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর সাব্বির ও সজীব শরীফসহ অনেকেই।
এসব শিশু-কিশোর-কিশোরীরা জানায়, আনসার-ভিডিপি হিসেবে কাজ করলে টাকা পাবে এই খুশীতে তারা দু’দিনের এই পরিশ্রমের কাজে এসেছে। তাদের রাতে তাদের প্রায় সবাইকেই কেন্দ্রগুলোতে থাকতে হয়েছে। এলাকার বড় ভাইরা তাদেরকে আনসার-ভিডিপি দায়িত্বে নিয়ে এসেছে। এছাড়া ডিউটি শেষে কত টাকা পাবে এই বিষয়টিও জানে না তারা।
এদিকে মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও আনসার ভিডিপি’র কর্মকর্তা সবাই শিশু-কিশোরদের আনসার ভিডিপি হিসেবে নিয়োগ দেয়া অবৈধ বলে জানালেও এসব শিশুদের ভোট কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে জানালেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা রাহেদ হোসেন।

QR Code - Take this post Mobile!
Use this unique QR (Quick Response) code with your smart device. The code will save the url of this webpage to the device for mobile sharing and storage.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *